বল-ই যখন সাকিবদের পরাজয়ের কারণ!

news portal website developers

sakibস্পোর্টস ডেস্ক: ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের শুরুতে টেস্ট সিরিজে লজ্জার ইতিহাস গড়েছে বাংলাদেশ দল। অ্যান্টিগা টেস্টে ইনিংস ও ২১৯ রানে পরাজিত হয় সাকিব আল হাসানের নেতৃত্বাধীন দলটি। স্বাগতিকরা এক ইনিংসে করেছে ৪০৬ সেখানে দুইবার ব্যাটিং করে বাংলাদশে করেছে ১৮৭ রান। টেস্টের সাদা পোশাকে দুই ইনিংস মিলিয়ে এটাই বাংলাদেশের সর্বনিম্ন স্কোর।

অ্যান্টিগা টেস্টে লজ্জার ইতিহাস গড়া বাংলাদেশ সিরজের শেষ টেস্টে জ্যামাইকাও ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। বাজে ব্যাটিংয়ের কারণে টেস্ট সিরিজে ২-০ তে পরাজিত হয় সাকিব বাহিনী।

সিরিজ হারের তিক্ততা তীব্র হয়ে ধরা দিয়েছে নাজুক ব্যাটিংয়ের কারণে। কেমার রোচ-গ্যাব্রিয়েল-হোল্ডারদের বোলিংয়ের সঙ্গে সিরিজে ব্যবহৃত ‘ডিউক’ বল কিছুটা ব্যবধান গড়েছে। বিপর্যস্ত সিরিজটাকে খারাপ সময় হিসেবেই দেখছে বাংলাদেশ দল।

টেস্ট সিরিজ শেষে গত বৃহস্পতিবার দেশে ফেরা নুরুল হাসান সোহান বলেছেন, এই পারফরম্যান্সের কোনো অজুহাত নেই। আফগানিস্তানের কাছে হারের পর এই সিরিজে কিছু করে দেখানোর মানসিকতাও কিছুটা চাপ হয়ে গিয়েছিল দলের উপর।

বাংলাদেশ দল দেশ ছাড়ার আগে একদিন মাত্র ডিউক বলে অনুশীলন করেছিলেন ক্রিকেটাররা। তাও বলটা প্রকৃত ডিউক বল ছিল না। বল কতটা বিপাকে ফেলেছিল প্রশ্নে সোহান বলেছেন, বলটা আসলে কেমন যেন। আমরা যেমন কুকাবুরায় খেলি, নতুন কিছু সময়ে সুইং করে কিন্তু খুব আহামরি না।

জাতীয় দলের এই উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান আরও বলেন, এই বলটার মূল যে জিনিসটা, বলটা একটু সাইজে ছোট। ১৪০-৫০ ওভার কিপিং করছি সিম একটু ডাবেনি, সিম পুরো খাড়া থাকে। ওরা যে সুবিধাটা পেয়েছে, বল সিমে হিট করলে দুই দিকেই নড়াচড়া করে খুব বেশি। যার কারণে সিম হিট করায় আমাদের জন্য খেলা একটু কঠিন হয়ে পড়েছিল।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরৈ সময়টা খারাপ গেছে বলেই চিন্তা করছেন ক্রিকেটাররা। সোহান বলেন, এই ব্যাটিং চিন্তা করলে, অনেক জায়গা বের হবে কাজ করার মতো। এভাবে যদি ভাবি একটা খারাপ সময় গেছে। আমাদের সবারই বিশ্বাস আছে, আমরা এর চেয়ে ভালো খেলতে পারি। আমি বলবো, খারাপ সময় গেছে।’

অ্যান্টিগায় ৬৪ রানের ইনিংস খেলা সোহান জ্যামাইকায় দুই ইনিংসেই শূন্য রানে আউট হয়েছেন। যদিও এই তরুণ উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান ভবিষ্যতে ভালো করতে অ্যান্টিগার ব্যাটিংয়ের আত্মবিশ্বাসকে সঙ্গী করেই এগুতে চান।

loading...