দেবাশীষ বিশ্বাসকে প্রাণনাশের হুমকি, থানায় জিডি

dabasisডেস্ক রিপোর্ট: জনপ্রিয় উপস্থাপক ও চিত্রপরিচালক দেবাশীষ বিশ্বাসকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়েছে। কন্টেন্ট প্রোভাইডর ও চলচ্চিত্র প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান লাইভ টেকনোলজিসের সিইও তামজীদ-উল-আলম অতুল প্রাণনাশের হুমকি দিয়েছেন বলে দেবাশীষ বিশ্বাস জানিয়েছেন। ইতিমধ্যে একটি জিডিও (জিডি নং-৩২৯, শেরেবাংলা নগর থানা, ডিএমপি, ঢাকা) করা হয়েছে।

গত ৫ ফেব্রুয়ারি জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে শেরে বাংলা নগর থানায় জিডিটি করেন দেবাশীষ বিশ্বাস।

জিডি সূত্রে জানা গেছে, কন্টেন্ট প্রোভাইডর ও চলচ্চিত্র প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান লাইভ টেকনোলজিসের সিইও তামজীদ-উল-আলম অতুল দেবাশীষ বিশ্বাসকে একটি ছবি তৈরি করে দিতে বলেন। তার বিনিময়ে দেবাশীষ বিশ্বাসকে ৩টি চেকের মাধ্যমে ৩০ লাখ টাকা দেওয়ার কথা জানান। এবং শর্ত মোতাবেক প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান দেবাশীষ বিশ্বাসকে টাকা পরিশোধ করে।

অন্যদিকে, দেবাশীষ বিশ্বাস গত ৪ ফেব্রুয়ারি বিকেলে রাজধানীর পান্থপথে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের ঠিকানায় ছবির হার্ডডিস্কসহ যাবতীয় কাগজপত্র বুঝিয়ে দিতে যান। এসময় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের সিইও তামজীদ-উল-আলম অতুল দেবাশীষ বিশ্বাসকে আটকে রেখে গালিগালাজসহ মারধর করেন। এবং বিভিন্ন ধরনের ভয়-ভীতির হুমকি দেন। একই সাথে দেবাশীষ বিশ্বাসকে দেওয়া টাকা ফেরত চান।

৪ ফেব্রুয়ারির ঘটনা প্রসঙ্গে দেবাশীষ বিশ্বাস বলেন, সেদিন তারা আমাকে ৩০ লাখ টাকার চেক দিতে বলেন। আমি বলি এটা আমি করতে পারব না। আমার কাছে কোনো টাকা নেই। তাছাড়া কেন আমি এটা করতে যাব? তখন তারা আমাকে প্রেশার ক্রিয়েট করে। আমাকে দিয়ে জোর করে নতুনভাবে আরও একটি স্ট্যাম্পে সাইন করায়। যদিও সেই স্ট্যাম্পেও অর্থ ফেরত দেয়ার কোনো বিষয় ছিল না। আমি সম্মান এবং জীবন রক্ষার্থে সে সময় ওই স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করতে বাধ্য হয়েছি।

তিনি বলেন, শুধু তাই নয়, সে সময় তারা জোর করে আমাকে দিয়ে অনেক কিছু বলিয়ে নিয়েছে। এবং সেটা রেকর্ডও করেছে। জীবন রক্ষার্থে আমি সেসব বলতে বাধ্য হয়েছি। আমি একটা কথা স্পষ্ট বলতে চাই, তাদের কাছে যদি টাকা ফেরত দেয়ার দলিল থাকে, তাহলে আমার কাছ থেকে কেন চেক লিখিয়ে নিতে চেয়েছে? আমাকে ব্ল্যাকমেইল করার জন্যই এটা করার চেষ্টা করেছে ওরা।

এতোদিন পরে কেন গণমাধ্যমকে জানালেন? এমন প্রশ্নের উত্তরে দেবাশীষ বলেন, প্রথম প্রথম পাত্তা দেইনি। এখন বিষয়টি সিরিয়াসলি নিয়েছি। যেহেতু প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়েছে।

প্রাণনাশের হুমকি দেয়ার বিষয়ে লাইভ টেকনোলজিসের সিইও তামজীদ-উল আলম অতুল কয়েকটি গণমাধ্যমকে বলেন, তিনি দেবাশীষ বিশ্বাসকে কোনো ধরনের হেনস্তা বা হুমকি দেননি। তার কাছে টাকা ফেরত দেয়ার চুক্তি রয়েছে। সে অনুযায়ী তার কাছে টাকা ফেরত চাওয়া হয়েছে। তাকে আটকেও রাখা হয়নি। তিনি টাকা ফেরত দেবেন বলে জানিয়েছেন।