জেডিএসএ’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক শফিকউজ্জামানের মায়ের মৃত্যু, শোক

sajeda khatunক্রীড়া প্রতিবেদক: যশোর জেলা ক্রীড়া সংস্থা (জেডিএসএ) এর সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শফিকউজ্জমানের মাতা সাজেদা খাতুন ইন্তেকাল করেছেন। মঙ্গলবার বিকেল সোয়া ৪টায় খড়কী পীরবাড়ী এলাকায় নিজস্ব বাসভবনে বাধ্যর্ক জনিত কারণে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহে….রাজিউন)। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৯৯ বছর। মৃত্যুকালে তিনি ৬ পুত্র নাতি নাতনীসহ অসংখ্য গুনাগ্রাহী রেখে গেছেন।

বুধবার বাদ জোহর খড়কী পীরবাড়ী জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে নামাজে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে পরিবার সূত্র থেকে জানানো হয়েছে।

তার মৃত্যুতে গভীর শোক ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন জাসদ কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটির সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা এড. রবিউল আলম, জেলা সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা অশোক কুমার রায়, জেলা ক্রীড়া সংস্থার হ্যান্ডবল, ভলিবল, বাস্কেটবল, কাবাডি, ফুটবল, ক্রিকেট, হকি পরিষদের পক্ষ থেকে সাধারণ সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্ধা ইয়াকুব কবির, জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের সভাপতি আসাদুজামান মিঠু, বাংলাদেশ হ্যান্ডবল পরিষদের সাবেক নির্বাহি সদস্য আনিসুজ্জামান পিন্টু, বাংলাদেশ আম্পায়ার্স ও স্কোরার অ্যাসোসিয়েশন যশোর জেলা শাখার সভাপতি খায়রুজ্জামান বাবু, সাধারণ সম্পাদক কাজী শহিদ আহমেদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক রাশেদ পারভেজ ফুল, সূর্য তরুণ ক্লাবের সভাপতি আবু সাঈদ, সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম রিয়াজ, ফুটবল প্রশিক্ষক এমদাদুল হক সাচ্চু, ক্রীড়া সংগঠক মইনুদ্দিন রোম, জাহিদ স্মৃতি সংঘের কামরুজ্জামান, মুক্তিযোদ্ধা ইসহাক স্মৃতি সংস্থার সাধারণ সম্পাদক নুর ইমাম বাবুল, সাঁতার প্রশিক্ষক আব্দুল মান্নান প্রমুখ।

উল্লেখ্য, সাজেদা খাতুনের সন্তানরা হলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান সুরকার ও গীতিকার ড. মনিরুজ্জামান, সুরকার ও গীতিকার মোহাম্মদ রফিকউজ্জামান, দেশ বরণ্যে ক্রীড়া সংগঠক মোহাম্মদ শফিকউজ্জামান, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা আসাদুজ্জামান, দোয়েল গ্রুপের জেনারেল ম্যানেজার মোহাম্মদ এমামুজ্জামান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিষ্ট্রার মোহাম্মদ এনামুজ্জামান, বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ হাবিবুজ্জামান, ক্রীড়া পরিদপ্তরের সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ তারিকউজ্জামান।
এসব দেশ বরেণ্য ক্রীড়া সন্তানের জন্মদাতা হিসেবে ২০১১ সালে তাকে গর্ভরন্ত পুরস্কার প্রদান করা হয়।