আবার কেন আসতে চান পাইবাস তা গোপনই রাখলেন পাপন

papon 2স্পোর্টস ডেস্ক: চন্ডিকা হাথুরুসিংহের পর কে হচ্ছেন বাংলাদেশের কোচ? এ প্রশ্নেই সরব ক্রিকেট পাড়া। ফিল সিমন্স, জিওফ মার্শের মতো হাই প্রোফাইল কোচের নামও এসেছে। মঙ্গলবার ঢাকায় এসে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছে পরীক্ষা দিয়েছেন টাইগারদের সাবেক কোচ রিচার্ড পাইবাস। তিনিই মাশরাফি-সাকিব-মুশফিকদের কোচ হচ্ছেন কি না সময়ই বলে দেবে। দেশের ক্রিকেটকে এগিয়ে নেওয়ার জন্য ১০ বছরের দীর্ঘমেয়াদী পরিকল্পনা দিয়েছেন ইংলিশ বংশোদ্ভূত এই দক্ষিণ আফ্রিকান। আর তার এ পরিকল্পনায় মজেছে বিসিবি। এটা বাস্তবায়ন করতে পারলে দেশের ক্রিকেট অনেক এগিয়ে যাবে বলে মনে করেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

বুধবার দুপুরে বিসিবিতে নিজের পরিকল্পনা তুলে ধরেন পাইবাস। আর সে পরিকল্পনা মনে ধরেছে বিসিবি সভাপতির, ‘পাইবাসের প্রেজেন্টেশন অবশ্যই ভালো। এটা নিয়ে কোনো সন্দেহ নাই। তবে অনেক দূরের ভবিষ্যত নিয়ে কথা বলেছে। ১০ বছরের একটা পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করবে। ও লম্বা সময়ের পরিকল্পনা নিয়ে এসেছে। কিন্তু আমাদের লং টার্ম, শর্ট টার্ম দুটোই দেখতে হবে। সামনে বিশ্বকাপ আছে, সেটাও আমাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। ও যা চায়, যেমন চায় এখনই হয়তো সব পারবো না। তবে শেষ পর্যন্ত ওই পরিকল্পনা কাজে লাগাতে পারলে বাংলাদেশের জন্যই ভালো হবে।’

তবে পাইবাসের প্রেজেন্টেশনে ঠিক কি আছে তা খুলে বলেননি পাপন। এমনকি তাকেই নেওয়া হচ্ছে কি না তাও এখনো নিশ্চিত না বলেই জানালেন। আগামী ১০ ডিসেম্বর বোর্ড সভায় বসবেন বিসিবি পরিচালকরা। সেখানেই আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানান। তবে এর আগে তালিকায় থাকা আরও কয়েকজন কোচের সাক্ষাৎকার নেওয়া হবে। ৯ ডিসেম্বর আসবেন ক্যারিবিয়ান ফিল সিমন্স। আয়ারল্যান্ড এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের কোচ ছিলেন সিমন্স। এর মাঝে আরও একজন হাই প্রোফাইল কোচও সাক্ষাৎকার দিতে আসবেন বলে জানান বোর্ড সভাপতি।

‘আমরা অনেক জায়গায় যোগাযোগ করেছি। যারা যারা আগ্রহ দেখিয়েছেন তাদের মধ্য থেকে সংক্ষিপ্ত তালিকা করেছি। আমরা এখন চূড়ান্ত প্রক্রিয়ার মধ্যে আসছি। তারই ধারাবাহিকতায় রিচার্ড পাইবাস গতকাল এসেছে। ৯ তারিখে আরেকজনের আসার কথা। মাঝখানে আরেকজন আসতে পারে। এরপর রিচার্ড হ্যালসল থেকে শুরু করে কোচিং স্টাফ যারা আছে তাদের সঙ্গে ৯ তারিখে আলোচনা করবো। তাই ম্যানেজার সুজন, টিম ক্যাপ্টেন এবং অন্যান্য যারা আছে সবার সাথে বসে সামনের সিরিজ নিয়ে আলোচনা করব। ওদের পরিকল্পনা জানতে চাইব।’

এদিকে আগামী জানুয়ারির শুরুতেই আসছে শ্রীলঙ্কা। যে দলটির বর্তমান কোচ বাংলাদেশের সদ্য সাবেক হওয়া কোচ হাথুরুসিংহে। তাই এ সিরিজই টাইগারদের জন্য বিশেষ এক সিরিজ। এ সিরিজের আগেই বাংলাদেশের কোচ নিয়োগের প্রাণপণ চেষ্টা করছে বিসিবি। কোচ নিয়োগের ক্ষেত্রে দলের সিনিয়র খেলোয়াড় সাকিব, তামিম ও মাশরাফির সঙ্গেও আলোচনা হয়েছে বলে জানান পাপন। তবে দিনশেষে বিসিবিই সিদ্ধান্ত নেবে কে হচ্ছেন টাইগারদের নতুন কোচ।