মানুষ ধর্মনিরপেক্ষ হতে পারে না: খন্দকার মোশাররফ

khandokar mosaraf hossenঢাকা: বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, জিয়াউর রহমান বুঝতে পেরেছিলেন মানুষ ধর্মনিরপেক্ষ হতে পারে না। যিনি মুসলমান তিনি মসজিদে যাবেন আর যিনি হিন্দু তিনি মন্দিরে যাবেন এটাই স্বাভাবিক। ধর্মের ক্ষেত্রে নিরপেক্ষ হওয়ার সুযোগ নেই। তাই সংবিধানে এই বিষয়ে পরিবর্তন এনেছিলেন জিয়াউর রহমান।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে ‘জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস’ উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী কৃষকদলের আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।

খন্দকার মোশাররফ বলেন, ৭ নভেম্বরের ঘটনাকে বিকৃতভাবে উপস্থাপন করে একটি মহল। তারা বলেন জাসদ এই বিপ্লব ঘটিয়েছিল। কিন্তু কোন সিভিল লোক তো ক্যান্টনমেন্টে ঢুকতে পারত না। সিপাহীরা জিয়াকে মুক্ত করে সেনা সদরে নিয়ে আসার পর সেখানে কর্নেল তাহের হাজির হন। হাসানুল হক ইনুর মত কিছু অতি উৎসাহী ট্যাংকের ওপর ওঠে লাফালাফি করলেই বিপ্লবের অংশীদার হয়ে যায় না।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ যে বিএনপিকে ভয় পায় তা সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের সমাবেশ ও কক্সবাজার সফর থেকে বোঝা যায়। সরকারের দিন শেষ। জনগণ আজ অতিষ্ট, ক্ষুব্ধ। তাই তারা স্বতস্ফুর্তভাবে আন্দোলনে অংশগ্রহণ করবে। আগামী নির্বাচন হবে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে।

কৃষক দলের সাধারণ সম্পাদক ও বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদুর সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ডালি, বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সাবেক সাংসদ মেহেদী হাসান রুমি প্রমুখ।