ডাক্তার বাড়ি যাওয়ার আগে গুছিয়ে নিন আপনার কথা

স্বাস্থ্য ডেস্ক: অসুখ হলেই প্রয়োজন পড়ে ডাক্তারের কাছে যাওয়ার। কিন্তু এক্ষেত্রে একটি সমস্যা অনেকের হয়ে থাকে, সেটি হলো ডাক্তারের কাছে যাওয়ার পরে যে রোগটির জন্য যান, সেটি বলতে ভুলে যান। বিশেষ করে যাদের একাধিক রোগ থাকে, তাদের ক্ষেত্রে এটি বেশি ঘটে থাকে।

আপনার যদি একইসঙ্গে উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস, হাঁপানি, হৃদরোগ ইত্যাদি থাকে। সেক্ষেত্রে অন্য সমস্যার কারণে মূল রোগটির কথা আপনি ভুলে যেতে পারেন। আর তাই ডাক্তারের বাড়ি যাওয়ার আগে গুছিয়ে নিন আপনার কথা।

চিকিৎসকের কাছে অনেকে নিজের সমস্যার কথা গুছিয়ে বলতে পারেন না, কথা বলতে বলতে খেই হারিয়ে ফেলেন। ডাক্তারে কাছে যাওয়ার আগে কীভাবে আপনার কথাগুলো গুছিয়ে নেবেন -এ বিষয়ে আমাদের জানিয়েছেন ঢামেক টেলিমেডিসিন বিভাগের কো-অর্ডিনেটর সহযোগী অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ যায়েদ হোসেন।

ডা. মোহাম্মদ যায়েদ হোসেন বলেন, ডাক্তারের কাছে আসার আগে অবশ্যই আপনার সমস্যাগুলো গুছিয়ে আসতে হবে কারণ অনেক রোগী আছেন যাদের বিভিন্ন ধরনের রোগ হয় এবং বিভিন্ন সমস্যা একইসঙ্গে দেখা দিয়ে থাকে। সেক্ষেত্রে ডাক্তারে কাছে আসার আগে একজন রোগী যদি তার প্রয়োজনীয় কাগজ ও শারীরিক সমস্যার কথাগুলো গুছিয়ে নেন, সেক্ষেত্রে রোগ বুঝতে এবং চিকিৎসা দেয়া অনেক সহজ হয়।

তিনি বলেন, বেশিরভাগ রোগী তাদের সমস্যার কথা সঠিকভাবে ডাক্তারের কাছে বলতে না পারায় রোগ অনুযায়ী চিকিৎসা দেয়া সম্ভব হয় না। এক্ষেত্রে রোগীর সঙ্গে তার পরিবারে একজন আসতে পারে। আর সবার আগে অবশ্যই আপনার সমস্যাগুলো গুছিয়ে নিতে হবে।

ঢামেকের ওই চিকিৎসক আরও জানান, ডাক্তারের কাছে আসার আগে আপনার গুরুতর সমস্যার কথা আগে বলুন। কারণ ছোট ছোট সমস্যা শুনতে শুনতে ডাক্তার অনেক সময় বিরক্ত হয়ে যান। আর এক্ষেত্রে যে সমস্যাটি বেশি হয়, সেটি হলো আপনি সঠিক চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হন।

আসুন জেনে নেই ডাক্তারের বাড়ি যাওয়ার আগে কীভাবে গোছাবেন প্রয়োজনীয় কাগজ ও আপনার কথা।

গুছিয়ে নিন কথা ও প্রয়োজনীয় কাগজ
ডাক্তারের কাছে আসার আগের রাতে অবশ্যই আপনার প্রয়োজনীয় কাগজ ও ডাক্তারের কাছে কোন বিষয়টি নিয়ে কথা বলবেন- তা ঠিক করে নিন। এই কাজটি করলে আপনি সঠিক চিকিৎসা পাবেন।

গুরুতর সমস্যা আগে বলুন
মূলত যে সমস্যার জন্য ডাক্তারের কাছে যাচ্ছেন, সেটি আগে বলুন। অপ্রযোজনীয় কথা কম বলা ভালো। বেশিরর ভাগ ক্ষেত্রে সময়ের স্বল্পতা থাকে, তাই গুরুত্বপূর্ণ বিষয় আগে তুলে ধরুন।

মনে না থাকলে লিখে
চিকিৎসকের কাছে যাওয়ার আগে আপনার প্রয়োজনীয় কথাগুলো নোট করে নিতে পারেন। কারণ অনেক কিছুই আপনার মনে থাকবে না। আপনি ভুলে যাবেন। এক্ষেত্রে লিখে রাখা ভালো।

চিকিৎসকের প্রশ্নের উত্তর যথাযথভাবে দিন
আপনার সমস্যার কথা বলার পরে যদি ডাক্তার আপনাকে কোনো প্রশ্ন করে তবে তার জবাব যথাযথভাবে দেয়ার চেষ্টা করুন। কারণ আপনার সমস্যা ভালোভাবে উপস্থাপন করলেই সঠিক চিকিৎসা পাবেন।

পুরাতন প্রেসক্রিপশন
একই চিকিৎসকের কাছে যদি পুরনায় যান, তবে পুরাতন প্রেসক্রিপশন সঙ্গে রাখতে পারেন। চিকিৎসককে সমস্যার কথা বলার পর আর পুরাতন প্রেসক্রিপশন থাকার ফলে ডাক্তারের চিকিৎসা দেয়া সহজ হবে। আর আপনিও সঠিক চিকিৎসা থেকে বঞ্চিত হবেন না।

অসহিষ্ণু আচরণ করবেন না
চিকিৎসকের কক্ষের বাইরে অপেক্ষা করার সময় অসহিষ্ণু আচরণ করবেন না। এতে ডাক্তারের সেবা কেন্দ্রের পরিবেশ নষ্ট হতে পারে। এছাড়া একজন ডাক্তারকে অনেক রোগীকে সময় দিতে হয়। সেক্ষেত্রে অপেক্ষা তো করতেই হবে।

সূত্র: দৈনিক যুগান্তার