যে কারণে ছেলেরা বিয়ে করতে চায় না

লাইফস্টাইল ডেস্ক: এই তো বেশ আছি! ব্যাচেলরদের এই এক কথা। অনেকেই বিয়েকে ঝামেলা মনে করে ব্যাচেলর জীবনটাকেই উপভোগ করতে চান। কিন্তু সামর্থ্য থাকলেও বিয়ে করতে না চাওয়ার কারণ কী? ব্যাচেলরদের কাছে নানা যুক্তি-অজুহাত শুনবেন। কিন্তু সত্যিকার কারণটি কি জানা আছে? গোপনে তথ্য শেয়ার করার অ্যাপ্লিকেশন হুইসপারে অনেকে বিষয়টি শেয়ার করেছেন। জেনে নিন বিয়ে না করার কয়েকটি কারণ:

বিয়ে ঝামেলার: বিয়ে করার বিষয়টিকে অনেকেই ঝামেলার বলে মনে করেন। বিয়ের দিনের বিভিন্ন আনুষ্ঠানিকতা বোঝা বলে মনে হয়। বিয়ের দিনটিতে বরের করার কিছু থাকে না। যা আনুষ্ঠানিকতা, সব কনেপক্ষের। সাজগোজ থেকে শুরু করে সবকিছু তো কনেপক্ষের। তাই কনেপক্ষের অনুষ্ঠানে নিজেকে বোকা সেজে বসে থাকাকে অনেকেই মেনে নিতে পারেন না। তাই বিয়েতে ‘না’ করে দেন অনেকেই।

বিয়ে মানে খরচ: অনেকে শুধু অর্থের কথা ভেবে বিয়ে করতে চান না। তাঁরা মনে করেন, বিয়ে মানেই তো শুধু খরচ। বিয়ের দিনের খরচ তো আছেই। বিয়ের পরের খরচও তো কম নয়! খরচের কথা ভেবে অনেকেই বিয়ের দিকে এগোতেই চান না।

বিয়ে মানে বাগড়া: অনেকেই মনে করেন, বিয়ে মানে সবকিছুতে বাগড়া। তাঁদের সহজ-সরল নির্ঝঞ্ঝাট জীবনযাপনে কর্তৃত্বের ভার অন্যের ওপর তুলে দেওয়া। অর্থ খরচ থেকে শুরু করে পছন্দের সবকিছুতে বউয়ের বিচার-আচার শুনতে হবে। কে মানবে এত কথা? বিয়ে করলেই জটিলতা বাড়বে। কে আর জটিলতায় জড়াতে চায়?

আনুষ্ঠানিকতা: বিয়ের পর শুরু হয় নানা আনুষ্ঠানিকতা। সাজ-পোশাক, গয়না পরার তোড়জোড়। আনুষ্ঠানিকতার ভয়ে অনেকে বিয়ে এড়াতে চান।

দায়িত্বের বোঝা: অনেকেই আছেন, শুধু প্রেম করতে চান, বিয়ে করতে নয়। বিয়েতে দায়িত্ব বেড়ে যায়। অনেকের কাছে তাই বিয়ে মানে আটকা পড়া। সারা জীবনের জন্য প্রতিশ্রুতি দেওয়া। এত বড় দায়িত্ব নেওয়ার প্রস্তুতি নেই বলে অনেকে বিয়ে করতে চান না।

স্বাধীনতা খর্ব: বয়স ৩৮ হয়ে যাচ্ছে কিন্তু বিয়ে করছেন না, এমন অনেকেই আছেন। তাঁদের নাকি সময় নেই! কাজের চাপে প্রেম, ডেটিং, বিয়ে করার ফুরসত মেলে না অনেকের। তাঁদের যুক্তি, কাজ না করলে কি পেট ভরবে? বিয়ে করলে কাজের স্বাধীনতা থাকবে না। ক্যারিয়ারের কী হবে? তথ্যসূত্র: হাফিংটন পোস্ট।