আত্মসমর্পণ করে জামিন পেলেন ক্রিকেটার সানি

arafat sunnyওয়ান নিউজ ডেস্ক: স্ত্রী নাসরিন সুলতানার দায়ের করা যৌতুকের মামলায় জাতীয় দলের ক্রিকেটার আরাফাত সানির জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত। সোমবার ঢাকা মহানগর হাকিম জাকির হোসেন টিপুর আদালতে আইনজীবী জুয়েল আহম্মেদের মাধ্যমে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন সানি। শুনানি শেষে বিচারক তার জামিন মঞ্জুর করেন। এর আগে গতকাল রোববার এই মামলায় অভিযোগ গঠনের (চার্জশিট) ধার্য দিনে উপস্থিত না থাকায় সানির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছিলেন একই আদালত।

একই সঙ্গে ওইদিন আদালত সানির বিরুদ্ধে স্ত্রী নাসরিন সুলতানার যৌতুকের জন্য নির্যাতনের মামলার অভিযোগ (চার্জশিট) গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন।

মামলার অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, ২০১৪ সালের ৪ ডিসেম্বর নাসরিন সুলতানার সঙ্গে সানির পাঁচ লাখ এক টাকার দেন মোহরে বিয়ে হয়।

বিয়ের পর ২০১৫ সালের ২৯ জুলাই ক্রিকেটার সানি ২০ লাখ টাকা যৌতুকের দাবি করেন। যৌতুকের টাকা দিতে না পারায় তাকে বিভিন্নভাবে গালাগালি এবং শারীরিক নির্যাতন করেন সানি।

২০১৬ সালের ২৩ ডিসেম্বর নাসরিন তাকে ঘরে তুলে নেয়ার আবেদন করলে সানি যৌতুকের টাকার জন্য ফের চাপ দিতে থাকেন। সর্বশেষ চলতি বছরের ১৯ জানুয়ারি বাদীর কাছে যৌতুকের ২০ লাখ টাকা দাবি করেন সানি।

বাদী ওই টাকা দিতে অস্বীকার করলে বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি প্রদর্শন করেন সানি। নিরুপায় হয়ে নাসরিন আক্তার ২৩ জানুয়ারি ঢাকা মহানগর হাকিম রায়হানুল ইসলামের আদালতে মামলাটি দায়ের করেন।

উল্লেখ্য, সানির স্ত্রী দাবিদার নাসরিন সুলতানা চলতি বছরের ৫ জানুয়ারি তার বিরুদ্ধে মোহাম্মদপুর থানায় তথ্যপ্রযুক্তি আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় ২২ জানুয়ারি সানিকে ঢাকার সাভার থানাধীন আমিনবাজার এলাকা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মামলায় সানির রিমান্ড চলাকালে তার বিরুদ্ধে ২৩ জানুয়ারি যৌতুক আইনের ৪ ধারায় আরেকটি মামলা করেন নাসরিন সুলতানা। এই মামলায় তিনি জামিনে ছিলেন।

তথ্যপ্রযুক্তি আইনে দায়ের করা মামলার বিবরণে জানা যায়, প্রায় ৭ বছর আগে পরিচয়ের সূত্রে আরাফাত সানির সঙ্গে নাসরিন সুলতানার ঘনিষ্ঠতা হয়। অভিভাবককে না জানিয়ে ২০১৪ সালের ৪ ডিসেম্বর তারা বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন।