মামলা প্রত্যাহারের দাবি আমরণ অনশনে জাবির তিন শিক্ষার্থী

ওয়ান নিউজ, ঢাকা : ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ ও ভিসির বাসভবন ভাঙচুরের ঘটনায় ৫৬ শিক্ষার্থীর নামে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) প্রশাসনের দায়ের করা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে আমরণ অনশনে বসেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন শিক্ষার্থী।

শনিবার (১৫ জুলাই) বেলা ২টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের ৪২ তম ব্যাচের ছাত্র সর্দার জাহিদ অনশনে বসে। পরে বিকাল ৪টার দিকে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের ৪০ তম ব্যাচের ছাত্রী পূজা বিশ্বাস অনশণে যোগ দেন।

রাত ১০টায় তাহমিদা জাহান নামে ইংরেজি বিভাগের আরেক শিক্ষার্থী অনশন কর্মসূচিতে এসে যোগ দেন। তবে তিনি এ মামলার আসামী নন।

অনশনকারী মামলার আসামী দুই শিক্ষার্থীর জানান, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের করা মামলার কারণে তারা সামাজিক এবং পারিবারিক ভাবে হেনস্থার শিকার হচ্ছেন। যা তারা কোনভাবেই মেনে নিতে পারছেনা। তাই তারা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে আমরণ অনশনে বসেছেন।

আরেক শিক্ষার্থী তাহমিদা জাহান বলেন, ‘আমার সহপাঠীদের মামলা দিয়ে হেনস্তা করা হবে আর আমি হলে বসে ঘুমাব তা হতে পারে না। প্রশাসন মামলা প্রত্যাহার না করা পর্যন্ত অনশন চালিয়ে যাব’।

এর আগে এ মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে গত ৯ জুলাই মানববন্ধন ও ১১ জুলাই মৌন মিছিল করেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষার্থীরা।

প্রসঙ্গত- গত ২৬ মে বাসচাপায় দুই শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার ঘটনায় প্রায় ৬ ঘন্টা ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। পরে বিকেলে পুলিশ রাবার বুলেট, টিয়ারশেল ছুড়ে শিক্ষার্থীদের মহাসড়ক থেকে সরিয়ে দেয়। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা, সাংবাদিকসহ কয়েকজন শিক্ষার্থী আহত হন।

পরে পুলিশি হামলার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীরা উপাচার্যের বাসভবনে গিয়ে ভাঙচুর ও কয়েকজন শিক্ষককে লাঞ্ছিত করেন বলে অভিযোগ উঠে। এ ঘটনায় ৩১ শিক্ষার্থীর নাম উল্লেখপূর্বক অজ্ঞাতনামাসহ মোট ৫৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।