গাইবান্ধায় শিশু ধর্ষণের অভিযোগে পিতার মামলা

গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ১৩ বছরের এক শিশুকে ফুসলিয়ে অপহরণের পর ধর্ষণ করা হয়েছে।
ধর্ষিত ওই শিশুটি সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বেলকা ইউনিয়নের রামডাকুয়া গ্রামের মমিন মিয়ার শিশু কন্যা ও মহিলা দাখিল মাদ্রাসার ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী।

স্থানীয়রা জানান, ধর্ষিত শিশুটির সাথে রংপুর জেলার পীরগাছা উপজেলার (নোয়াখালীপাড়া) গ্রামের নুরুল হকের পুত্র রাসেল মিয়া প্রতিনি মোবাইলে কথা-বার্তা বলতো। এতে উভয়ের মধ্যে সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এক পর্যায়ে মাদ্রাসার সামনের রাস্তা থেকে ওই ছাত্রীকে কৌশলে অপহরণ করে নিয়ে যায় প্রেমিক রাসেল। এরপর রাতভর বিভিন্ন জায়গায় নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে পরদিন রাস্তায় রেখে কেটে পরে।

অসুস্থ ওই শিশুটিকে পথচারিরা দেখতে পেয়ে স্থানীয় স্বাস্থ্য কন্দ্রে ভর্তি করে সুস্থ্য করে তার বাড়িতে পৌঁছে দেয়।

পরে শিশুটির পরিবার বাদি হয়ে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৭/৯ (১) ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন।

সুন্দরগঞ্জ থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতিয়ার রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, শিশুটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য আজ বৃহ:বার গাইবান্ধা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।