চন্দ্রগঞ্জে চোরকে বাঁচাতে ভিডিও ফুটেজ নিয়ে লুকোচুরির অভিযোগ

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জ বাজারে ৪টি দোকানে দু:সাহসিক চুরি হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত চোরকে বাঁচাতে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরায় ধারন করা ভিডিও চিত্র নিয়ে লুকোচুরির অভিযোগ উঠেছে এক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে।

এদিকে ভিডিও চিত্রে শনাক্ত হলেও ঘটনার ১২দিনেও চোর ধরা ছোঁয়ার বাইরে থাকায় ব্যবসায়ীদের মাঝে বিরাজ করছে ক্ষোভ ও অসন্তোষ।

ভুক্তভোগী ও ব্যবসায়ীরা জানায়, গত ২৯ ডিসেম্বর গভীর রাতে চন্দ্রগঞ্জ বাজারের করিমা সুপার মার্কেট ও দাদা ভাই প্লাজার ৪টি দোকানে দু:সাহসিক চুরি সংগঠিত হয়। ওই সময় দু’টি মার্কেটের মাহবুব এর ওষুধের দোকান, আজিম ও সফির মনোহরী দোকান এবং ঢাকা ফ্যাশন নামে দোকানের তালা ভেঙ্গে লক্ষাধিক টাকা নিয়ে যায়।

করিমা সুপার মার্কেটে চুরির ঘটনাটি মার্কেটের ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরায় (সিসি ক্যামেরা) ধারণ হয়। ওই ক্যামেরায় আলু খলিল নামে এক ব্যাক্তির চুরির দৃশ্য ধারন হয় বলে জানায় ওই মার্কেটের ব্যবসায়ীরা।

পরে চোরকে বাঁচাতে করিমা সুপার মার্কেটের রানী জুয়েলার্সের মালিক জয়দেব সিসি ক্যামেরায় ধারন করা ভিডিও সরিয়ে নেয় এবং চুরি যাওয়া ব্যবসায়ীদের সঙ্গে চোরের সমোঝতা করিয়ে দেয়।

এব্যপারে জুয়েলারী ব্যবসায়ী জয়দেব জানান, সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ তিনি সরিয়ে রেখেছেন, তবে পুলিশ প্রশাসন চাইলে সেই ফুটেজ দেবেন। চোরের সঙ্গে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীদের সমোঝতা করিয়ে দেয়ার বিষয়টি স্বীকার করেন ওই জুয়েলারী ব্যবসায়ী।