মরক্কোতে আছে ‘ছাগল-গাছ’!

treeওয়ান নিউজ ডেস্ক : ‘গল্পের গরু আকাশে ওড়ে’ এমন বাক্যের কথা আমরা অনেকেই শুনে থাকব হয়তো। কিন্তু আজ এমন কিছু ছাগলের কথা বলব, যারা আকাশে না হলেও গাছে চড়তে পারে। এই ছাগলের পাল শুধু গাছেই ওঠে না, একেবারে মগডালে গিয়ে ফল পেড়ে খায়! কথাটি বিশ্বাস হচ্ছে না তো? বিশ্বাস না হলে বলছি, এটা সত্যি সত্যিই ঘটেছে মরক্কোতে।

এখানে প্রতিদিনই ছাগলের পাল গাছে উঠে ফল খায়। সম্প্রতি ছবি ও ভিডিওসহ এমন খবরই প্রকাশ করেছে লন্ডনের মিরর অনলাইনসহ বিশ্বের বিভিন্ন পত্রিকা।

মিররের খবরে জানা যায়, দক্ষিণ-পশ্চিম মরক্কোয় আরগান নামে এক বিশেষ রকমের গাছ দেখতে পাওয়া যায়। সারা গায়ে কাঁটাযুক্ত এই গাছের ফল রসালো ও সুস্বাদু। এই আরগান ফল থেকে আরগান তেল তৈরি হয়, যা বিদেশে রপ্তানি করে মরক্কো প্রচুর পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা আয় করে। এই আরগান ফল সে দেশের ছাগলের কাছে খুবই প্রিয়। এই ফল এবং গাছের পাতা খেতে ছাগলের পাল গাছে উঠে যায়, তা গাছ যত উঁচুই হোক না কেন। চার পায়ে ব্যালান্স করে এ-ডাল থেকে ও-ডালে অনায়াসে এসব ছাগল ঘুরে বেড়ায়। দেখে মনে হয়, যেন কাজটি তাদের কাছে একেবারেই সহজ। একটি গাছে ১০-১৫টি ছাগল পর্যন্ত দেখা যায়।

মাউরুজিও পুন্টারি নামের ৫৫ বছর বয়সী একজন ইতালীয় ফটোগ্রাফার মরক্কোর ইসাউইরা দিয়ে যাচ্ছিলেন। হঠাৎ তিনি তাজ্জব হয়ে যান। দেখতে পান, কয়েকটি ছাগল দক্ষ আরোহীর মতো গাছে উঠে খাবার খাচ্ছে! তিনি যেন তাঁর নিজের চোখকেই বিশ্বাস করতে পারছিলেন না। তিনি দ্রুত ক্যামেরা বের করে ছবি তোলা শুরু করেন। তিনি বলেন, ‘এ রকম দৃশ্য আমি আগে কখনো দেখিনি। এটা আমার জন্য বিরাট একটি সারপ্রাইজ ছিল।’ তাঁর তোলা ছবি ছড়িয়ে পড়ার পর থেকেই বিশ্বব্যাপী বেশ সাড়া জাগে।

এখন আরগান ‘ছাগল-গাছ’ নামেই পরিচিতি পেয়েছে।